পদ কাকে বলে? পদ কত প্রকার ও উদাহরণ

পদ কাকে বলে?

বাক্যে ব্যবহৃত প্রত্যেকটি অর্থবােধক শব্দকে পদ বলে। অর্থাৎ বাক্যে বিভক্তিযুক্ত শব্দ ও ধাতুই এক একটি পদ।

যেমন- জেলেরা নদীতে মাছ ধরে। এখানে জেলেরা, নদীতে, মাছ, ধরা- মোট চারটি শব্দ রয়েছে। সুতরাং এই চারটি শব্দের প্রত্যেকটিই এক একটি পদ। সুতারাং, বাক্যে ব্যবহৃত প্রত্যেকটি অর্থবােধক শব্দই এক একটি পদ।

পদ কত প্রকার ও কি কি

বাংলা ব্যাকরণে পদ প্রধানত দুই প্রকার সব্যয় পদ ও অব্যয় পদ। সব্যয় পদ আবার চার প্রকার। সুতারাং পদ মোট পাঁচ প্রকার যেমন, বিশেষ্য, বিশেষণ, সর্বনাম, ক্রিয়া, ও অব্যয় পদ। 

তবে, আধুনিক প্রমিত বাংলা ব্যাকরণ অনুসারে পদ মোট ৮ প্রকার।
  1. বিশেষ্য
  2. বিশেষণ
  3. সর্বনাম
  4. ক্রিয়া
  5. ক্রিয়াবিশেষণ
  6. আবেগসূচক
  7. সংযোজক
  8. অনুসর্গ

পদ কাকে বলে? পদ কত প্রকার ও উদাহরণ, azhar bd academy

১. বিশেষ্য পদ
বাক্যে ব্যবহৃতত যে সকল পদ দ্বারা কোন ব্যক্তি, জাতি, সমষ্টি, বস্তু, স্থান, কাল, কর্ম, ভাব ও গুণের নাম বুঝায়, তাকে বিশেষ্য পদ বলে। যেমন– সুমন বই খেলে। ঢাকা বাংলাদেশের রাজধানী ইত্যাদি।

২. সর্বনাম পদ
বাক্যে বিশেষ্যের পরিবর্তে যে শব্দ ব্যবহৃত হয়, তাকে সর্বনাম পদ বলে। আমি, তুমি, সে, নিজে,কেউ, এরা, আপনি, আমরা, তারা, তাদের, কারা, এটা, তোমরা ইত্যাদি সর্বনাম পদ হিসেবে বাক্যে বসে। যেমন, সে বই পড়ে। তোমরা আগামীকাল আসবে। তারা বাজারে যাবে না।

৩. বিশেষণ পদ
যে পদ বিশেষ্য, সর্বনাম এবং ক্রিয়াপদের দোষ, গুণ, অবস্থা, সংখ্যা, পরিমাণ ইত্যাদি প্রকাশ করে, তাকে বিশেষণ পদ বলে। ভাল, মন্দ, ছোট, বড়, সামান্য, কিছু, দুটি, তিনটি ইত্যাদি বিশেষণ পদ। যেমন– সুমন ভালো ছেলে। টেবিলটি অনেক ছোট ইত্যাদি।

৪. ক্রিয়াপদ
যে পদ দ্বারা কোন কার্য সম্পাদন করা বোঝায়, তাকে ক্রিয়াপদ বলে। খাওয়া, যাওয়া, আসা, পড়ে, লেখা, খেলা, আঁকে, দৌড়ায় ইত্যাদি ক্রিয়াপদ। যেমন–জাহাঙ্গীর স্কুলে যায়। সুমন ক্রিকেট খেলে। গরু ঘাস খায় ইত্যাদি


৫. ক্রিয়াবিশেষণ
যে পদ দ্বারা ক্রিয়াপদের অবস্থা বোঝায়, তাকে ক্রিয়াবিশেষণ বলে।  দ্রুত, আস্তে, খারাপভাবে, অতি, ইত্যাদি ক্রিয়াবিশেষেণ। যেমন–খাবার আস্তে আস্তে খাওয়া উচিত, দ্রুততার সাথে নয়।

৬. অনুসর্গ
যে পদ নামপদের (বিশেষ্য ও সর্বনাম) সঙ্গে বাক্যের অন্যন্য পদের সংযোগ বা মিলন ঘটায়, তাকে অনুসর্গ পদ বলে। তো, এখানে, পরে, ওখানে, নিচে। যেমন–কুকুরটি টেবিলের নিচে
লোকটি সেতুর উপর দিয়ে দৌড়ে গেল।

৭. সংযোজক পদ
যে পদ  অন্যান্য পদ, বাক্য ও উক্তিকে যুক্ত করে, তাকে সংযোজক পদ বলে। এ, কিন্তু, যখন, অথবা ইত্যাদি সংযোজক পদ। যেমন–আমি আপেল ও কমলা পছন্দ করি, কিন্তু আনারস নয়।

৮. আবেগসূচক পদ
বাক্যে যে পদ সংক্ষিপ্ত মনের ভাব প্রকাশ করে, তাকে আবেগসূচক পদ বলে। ওহ!, আও!, ওহে, আও! উহ্! ইত্যাদি আবেগসূচক পদ। যেমন–আহ্! খুবই ব্যথা পেলাম। 

Do not enter any harmful link

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Do not enter any harmful link

Post a Comment (0)

নবীনতর পূর্বতন